হুমায়ূন আহমেদের শুভ্র উপন্যাস পিডিএফ Humayun Ahmed Shuvro Samagra pdf download link

হুমায়ূন আহমেদের শুভ্র উপন্যাস পিডিএফ Humayun Ahmed Shuvro Samagra pdf download link
হুমায়ূন আহমেদের শুভ্র উপন্যাস পিডিএফ Humayun Ahmed Shuvro Samagra pdf download link

Humayun Ahmed Shuvro Samagra pdf Free ebook download as PDF File (.pdf) or read book online for free. প্রখ্যাত কথা সাহিত্যিক হুমায়ূন আহমেদের শুভ্র সিরিজের বইয়ের সকল পিডিএফ ডাউনলোড করুন একদম ফ্রিতে। শুভ্র বাংলাদেশের প্রখ্যাত ঔপন্যাসিক হুমায়ূন আহমেদের সৃষ্ট একটি জনপ্রিয় চরিত্র। শুভ্র শুদ্ধতম মানুষ। তার চোখ খুব খারাপ, চোখ থেকে চশমা খুলে ফেললে সে প্রায় অন্ধ; ফলে তার ক্লাসের বন্ধুরা তাকে কানাবাবা নামে ডাকে। শুভ্র কে নিয়ে হুমায়ূন আহমেদের ৬ টি উপন্যাস রয়েছে।

হুমায়ূন আহমেদের শুভ্র উপন্যাস পিডিএফ Humayun Ahmed Shuvro Samagra pdf download link
হুমায়ূন আহমেদের শুভ্র উপন্যাস পিডিএফ Humayun Ahmed Shuvro Samagra pdf download link

Shuvro Samagra pdf লেখক পরিচিতিঃ

হুমায়ূন আহমেদ-এর প্রথম উপন্যাস ‘নন্দিত নরকে’ প্রকাশিত হয় ১৯৭২-এ। এই অর্থে তাঁকে বাংলাদেশ রাষ্ট্রের প্রায় সমকালীন এক আখ্যানকার বলা যায়। জন্ম : ১৯৪৮, ১৩ নভেম্বর, ময়মনসিংহ জেলার কুতুবপুর গ্রামে। রসায়নের ছাত্র, এবং মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের নর্থ ডাকোটা স্টেট বিশ্ববিদ্যালয় থেকে পি- এইচ. ডি ডিগ্রি পেয়েছেন, পলিমার কেমিস্ট্রিতে গবেষণার জন্য। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের রসায়নশাস্ত্রের এই অধ্যাপক–১৯৮১-তে তাঁর সাহিত্যকর্মের স্বীকৃতি পান, ‘বাংলা একাডেমী পুরস্কার’ এ। ১৯৯৪-এ পান সর্বোচ্চ রাষ্ট্রীয় সম্মান একুশে পদক।

১৯৭২ থেকে ১৯৯৮-এর সার্ধ-দুই দশকে, তাঁর উপন্যাস সমগ্রের দশম খণ্ডই শুধু প্রকাশিত হয় নি, তার সঙ্গে প্রকাশিত হয়েছে ‘সায়েন্স ফিকশন সমগ্র’ এবং এক আশ্চর্য- চরিত্র মিসির আলি’র আখ্যান নিয়ে ‘মিসির আলি অমনিবাস’। একাধিক কাহিনী নিয়ে নির্মিত হয়েছে, দূরদর্শন-চিত্র এবং নাটক। তাঁর পরিচালিত ছবি আগুনের পরশমণি শ্রেষ্ঠ ছবিসহ ৮টি শাখায় পেয়েছে জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার। সম্মানিত হয়েছেন— শিশু একাডেমী পুরস্কার, লেখক শিবির পুরস্কার, মাইকেল মধুসূদন পুরস্কার, অলক্ত সাহিত্য পুরস্কার, শিল্পাচার্য জয়নুল আবেদিন স্বর্ণপদক, অতীশ দীপংকর স্বর্ণপদকসহ আরো বহু পুরস্কারে।

Shuvro Samagra pdf review

শুদ্ধতম মানুষ কেমন হবে? অনেক প্রশ্নের মতো এই প্রশ্নটা আমার মনে প্রায়ই আসে। আমি আমার চারপাশের মানুষজন খুব মন দিয়ে দেখি। এক ধরনের গোপন অনুসন্ধা | চলতে থাকে যদি কোনো শুদ্ধ মানুষের দেখা পেয়ে যাই। পত্রিকায় বিজ্ঞাপন দিয়েতো আমি শুদ্ধতম মানুষ খুঁজে বের করতে পারব না। আমাকে খুঁজতে হবে আমার পরিচিতজনদের মধ্যে।

দীর্ঘ দিনের অনুসন্ধানে কোনো লাভ হয় নি। শুদ্ধ মানুষ আমাকে সৃষ্টি করতে হয়েছে কল্পনায়। শুভ্র সে রকম একজন। বেচারার চোখ খুব খারাপ। চোখ থেকে চশমা খুলে ফেললে সে প্রায় অন্ধ। তার ক্লাসের বন্ধুরা তাকে ডাকে কানাবাবা! শুদ্ধ মানুষের চোখ খারাপ হতে হবে এমন কোনো কথা নেই। তাকে চোখ খারাপ দেখানোর পেছনের প্রধান যুক্তি সম্ভবত আমি, আমার নিজের চোখও ভয়ঙ্কর খারাপ (পাঠকরা দয়া করে ভাববেন না যে আমি নিজেকে খুব সূক্ষ্মভাবে শুদ্ধতম মানুষ বলার চেষ্টা করছি। কোনো শুদ্ধ মানুষের একশ’ গজের ভেতর যাবার যোগ্যতা আমার নেই)। যাই হোক, শুভ্র চরিত্রটি তৈরি হলো।

বেশ কিছু উপন্যাস লিখলাম শুভ্রকে নিয়ে, যেমন রূপালী রাত্রি, দারুচিনি দ্বীপ। তারপর হঠাৎ করেই শুভ্রকে নিয়ে লেখা বন্ধ করে দিলাম। আমার কাছে মনে হলো আমি ভুল করছি, শুদ্ধতম মানুষ বলে কিছু নেই। শুভ্র চরিত্রটি নতুন করে লিখতে হবে। বর্তমান উপন্যাসটি ‘শুভ্র’ নামে পাক্ষিক ‘অন্যদিন’ পত্রিকায় ধারাবাহিকভাবে প্রকাশিত হয়েছে। খুবই অনিয়মিতভাবে লিখেছি। এক সংখ্যায় লিখলাম, পরের দু’সংখ্যায় লিখলাম না- এ রকম। শেষের দিকে এসে কোনো রকম ঘোষণা ছাড়াই লেখা বন্ধ করে দিলাম। ‘অন্যদিন’-এর পাঠক-পাঠিকা এবং বিশেষ করে পত্রিকা সম্পাদকের কাছে আমি ক্ষমা প্রার্থনা করছি। মানুষ মাত্রই ক্ষমা করতে পছন্দ করে। তাঁরা আমাকে ক্ষমা করবেন বা ইতিমধ্যেই ক্ষমা করে দিয়েছেন। এ বিষয়ে আমি নিশ্চিত।

শুভ্র উপন্যাস সম্পর্কে লেখকঃ

শুভ্র যে খুব একটা জনপ্রিয় চরিত্র তা কিন্তু না। হিমুকে বা মিসির আলি সাহেবকে সবাই যেভাবে চেনে, শুভ্রকে সেভাবে চেনে না। শুভ্রকে নিয়ে পূর্ণদৈর্ঘ্য একটি চলচ্চিত্র হয়েছে (দারুচিনি দ্বীপ), তারপরেও না। সাদামাটা শুভ্রের আকর্ষণী ক্ষমতা মনে হয় কম। বেচারা তার জন্যে দায়ী না, দায়ী আমি। আমিই তাকে দূরের মানুষ করে রেখেছি।

শুভ্রের জন্য বৃত্তান্তটা বলি। কুড়ি বছর আগে একটা ছোটগল্প লিখেছিলাম। গল্পের নাম একটি সাদা গাড়ি। শুভ্র নামের যুবকের জন্ম তখন। সে এই সাদাগাড়ি চড়ে ঘুরতো। সুখী কোনো মানুষকে দেখতে পেলে খুব আনন্দ হয়। এই শুভ্রই পরে অনেক উপন্যাসে এসেছে। হিমু যেমন সব উপন্যাসে হিমু হিসেবে এসেছে, শুভ্র কিন্তু সেভাবে আসে নি। একেক উপন্যাসে একেক ভাবে এসেছে। কমন ব্যাপারটা হল তার নাম এবং তার হাই পাওয়ারের মোটা চশমা।

আমাকে কৌতূহলী পাঠক প্রায়ই জিজ্ঞেস করেন-আমি হিমু না-কি মিসির আলি। কেউ এখন পর্যন্ত জিজ্ঞেস করেন নি আমি কি শুভ্র? মনে হয় আমার কৃষ্ণ গাত্র বর্ণ এবং অতি সাধারণ চেহারা এর জন্যে দায়ী। শুভ্র রাজপুত্রের মত। রাজপুত্র বিষয়ক সব লেখা অনন্যা প্রকাশ করছে। রাজপুত্র তাদের কাছে সুখে থাকবে এই প্রত্যাশা করছি।

Shuvro Samagra pdf list

শুভ্র pdf – হুমায়ুন আহমেদ Shuvro pdf – Humayun Ahmed Shuvro Samagra pdf

দারুচিনি দ্বীপ pdf – হুমায়ুন আহমেদ Daruchini Dip pdf – Humayun Ahmed pdf

মেঘের ছায়া pdf – হুমায়ুন আহমেদ Megher Chaya pdf – Humayun Ahmed pdf Shuvro Samagra pdf

শুভ্র গেছে বনে pdf – হুমায়ুন আহমেদ Shuvro Gechhe Bone pdf – Humayun Ahmed Shuvro Samagra pdf

রূপালী দ্বীপ pdf – হুমায়ুন আহমেদ Rupali Dip pdf – Humayun Ahmed Shuvro Samagra pdf

এই শুভ্র! এই pdf – হুমায়ুন আহমেদ Ei Shuvro Ei pdf – Humayun Ahmed   Shuvro Samagra pdf

শুভ্র সমগ্র pdf – হুমায়ূন আহমেদ Shubhra Samagra pdf download – Humayun Ahmed 

হুমায়ুন আহমেদ pdf ৩০০+ বই Humayun Ahmed pdf 300 + books হুমায়ূন আহমেদের অন্যান্য বইগুলোর পিডিএফ ডাউনলোড করুন এখান থেকে।

Any banglabooks pdf download link

Be the first to comment

Leave a Reply