শিমুলগড়ের খুনে ভূত pdf – সমরেশ বসু Shimulgarer Khune Bhut pdf – Somoresh Bosu

শিমুলগড়ের খুনে ভূত pdf - সমরেশ বসু Shimulgarer Khune Bhut pdf - Somoresh Bosu

সমরেশ বসু এর Shimulgarer Khune Bhut pdf  শিমুলগড়ের খুনে ভূত pdf ডাউনলোড করুন। Shimulgarer Khune Bhut pdf সমরেশ বসুর অনন্য সৃষ্টি গোয়েন্দা কাহিনীর একটি।  রহস্য থ্রিলার এ ভরপুর শিমুলগড়ের খুনে ভূত pdf  পাঠব মনে সাড়া জাগানো উপন্যাস। শিমুলগড়ের খুনে ভূত pdf অনুসরণে নির্মান করা হয়েছে ওয়েব সিরিজ। নতুন অ্যাডভেঞ্চারে এবার গোগোল অভিযান পরিচালনা করবেন শিমুলগড়ে যা শিমুলগড়ের খুনে ভূত pdf নামে পাঠকের কাছে সমরেশ বসু উপস্থাপন করেছেন। সমরেশ বসুর রহস্য রোমাঞ্চ সিরিজ শিমুলগড়ের খুনে ভূত pdf পড়ে ফেলুন।

শিমুলগড়ের খুনে ভূত pdf - সমরেশ বসু Shimulgarer Khune Bhut pdf - Somoresh Bosu

Shimulgarer Khune Bhut pdf নমুনাঃ

গোগোল বুঝতে পারছে, বাবা-মা’তে একটা বিষয় নিয়ে বেশ আলোচনা চলছে। আর এটা চলছে গত দু’দিন ধরে। দু’দিন আগে সেই যে এক মামা এলেন, আর বাবা মা’র সঙ্গে কী সব কথাবার্তা বললেন, রিপর থেকেই বাবা-মা’তে আলোচনা অফিসে যাবার আগে আলোচনা চলছে। রাবার চলছে। আবার অফিস থেকে সন্ধের আগে বাড়ি ফিরে এলেই মা’র সঙ্গে বাবার সেই একই আলোচনা চলছে। আলোচনা মানে, কোনও একটা ব্যাপার নিয়ে বাবা-মা’র মতের মিল হচ্ছে না। আর এই ব্যাপারটা শুরু করে দিয়ে গেছেন সেই মামা।
গোগোল এখন বেশ বুঝতে শিখেছে, ওর মামার বাড়ির বংশ বিরাট। এক-এক সময় মনে হয়, গোটা বাংলাদেশটা জুড়েই যেন ওর মামাদের বংশ ছড়িয়ে আছে।

কেবল পশ্চিমবাংলায়, তা নয়। এখন যেটা বাংলাদেশ হয়ে গেছে, মামাদের একটি পরিবার নাকি এখনও সেখানে রয়েছে। পশ্চিমবাংলায় এ পর্যন্ত গোগোল দু’জায়গায় মামার বাড়িতে গেছে। মা নিজেই এক এক সময় হেসে বলেন, “আমার বাবার বাড়ির বংশ যেন রাবণের গোষ্ঠী । ”
গোগোল না জিজ্ঞেস করে পারেনি, “রাবণের গোষ্ঠী কী মা !” Shimulgarer Khune Bhut pdf

মা হেসে বলেছেন, “যে গোষ্ঠীর শেষ নেই। বিশাল আর বিরাট। তা’বলে যেন ভেবো না, রাবণের গোষ্ঠী বলতে আমি রাক্ষসের গোষ্ঠী বলছি। আসলে আমাদের বাবার বাড়ির বংশটা এত বড়, জ্ঞাতি-গোষ্ঠী মিলে নানান জায়গায় ছড়িয়ে আছে। আজকাল তো আর একান্নবর্তী পরিবার বলতে গেলে নেই। সবাই যে যার কাজে, নানা জায়গায় ছড়িয়ে পড়েছে। আলাদা আলাদা বাড়ি করেছে। কেউ কেউ পুরনো সেই আদি বাড়িতেই আছে। তবে এটাও মনে রেখো, বলছিনে। তুমি যে দুই মামার নিজের আপন দাদা নন। দাদা। তাঁরা হলেন বাবা-ঠাকুর্দার কেবল গেছ, তাঁরা কেউ কিন্তু আমার মামাতো দাদা, কেউ পিসতুতো দাদা। আর আমাদের নিজেদের আমার বাবা-ঠাকুদাদের কথাই তো আলাদা। তুমি আমার আপন দাদা ভাইদেরও কয়েকজনকে দেখেছ। আর এটাও জানো, আমার রোজন ভাইবোন।

সমরেশ বসুর আরো বইয়ের পিডিএফ ডাউনলোড করুন এখান থেকে।

আমার জ্যাঠতুতো ভাইবোন হল এরকম সব জ্ঞাতি-গোষ্ঠী মিলিয়ে হিসেব করলে, আমার মামার সংখ্যা অগুনতি। আর তাঁদের অনেকেই ছড়িয়ে আছেন সারা ভারতবর্ষে। গোগোল বলেছিল, “জানি তো। দিল্লিতে একবার এক মামার বাড়ি গেছলাম !” Shimulgarer Khune Bhut pdf

মা চোখ পাকিয়ে বলেছিলেন, “সে-কথা আমি কখনও ভুলি ? রাজধানী এক্‌সপ্রেসে আসতে গিয়ে কী কাণ্ডটাই না তুমি করেছিলে। এমন জ্বালানে ছেলে যদি একটাও হয় । এ-সব কথা উঠলেই, গোগোল লজ্জা পেয়ে যায়। সত্যি, রাজধানী একসপ্রেসে কী ভয়ংকর কাণ্ডটাই না ঘটেছিল! তায় আবার, সেবার বাবা সঙ্গে ছিলেন না। গোগোল মা’র সঙ্গে ফিরছিল। কিন্তু গোগোলই বা কী করবে? ও তো নিজের থেকে কোনও কাও বাধায়নি। ও কি জানত ট্রেনের মধ্যে ওর চোখের সামনেই, একজনকে আর একজন রিভলভার দিয়ে গুলি করে মারবে? তারপরেই তো কোথা থেকে গোয়েন্দা অশোক ঠাকুর এসে গেলেন। খুনির দল গোগোলকে ট্রেন থেকে নামিয়ে নিয়ে গেছল। সে এক ধুন্ধুমার কাণ্ড !

যাই হোক, মামার বাড়ির কথা বলতে গিয়ে, মা আর একটি কথা বলেছিলেন। গোগোলের সে-কথা মনে বলেছিলেন, “আমাদের যে আসল পৈতৃক ছেলেবেলায় একবার দেখেছিলাম। লঙ্কাপুরী। শুনেছি, প্রায় দেড়শো গেলে, প্রায় একটা গ্রাম জুড়ে আসলে আমার বাবার রাজবংশ। Shimulgarer Khune Bhut pdf

মা বলেছিলেন, “থাকেন বই কী। সেই বিশাল পুরীতে কে যে কোথায় থাকেন, আমি কিছুই বুঝতে পারিনি। দেখে মনে হচ্ছিল পালিয়ে আসতে পারলে বাঁচি। যেন একটা প্রকাণ্ড গোলকধাঁধা। আমি ছেলেবেলায় বাবার সঙ্গে গেছলাম। কাদের ঘরে যেন আমাদের থাকা-খাওয়ার ব্যবস্থা হয়েছিল। আর বাবা আমাকে বলেই রেখেছিলেন, আমি যেন ঘর থেকে একদম না বেরোই গোগোল চোখ বড় করে জিজ্ঞেস করেছিল, “কেন? ভূত ছিল। বুঝি ?”
মা হেসে বলেছিলেন, “ছেলেবেলায় তো আমার চোখে ওটা একটা ভুতুড়ে পুরী বলেই মনে হয়েছিল।

Shimulgarer Khune Bhut pdf download link

Download / Read Online

Be the first to comment

Leave a Reply